সিলেটে চিকিৎসকের নিকট রোগী ধর্ষিত অবশেষে ধর্ষক গ্রেফতার

১৭ অক্টোবর ২০২২, ৪:৪৬:১৯

আবুল কাশেম রুমন,সিলেট: সিলেটে চিকিৎসকের নিকট রোগী ধর্ষিত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশ ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বার বার এক যুবতীকে ধর্ষণে গর্ভবর্তী হন। তখন ভিকটিম বিয়ের জন্য চাপ সৃষ্টি করলে ডাক্তার সময় ক্ষেপন করতে থাকেন এবং নানা অজুহাত দেখাতে থাকনে। চিকিৎসকের প্রতারণা বুঝতে পেরে ভিকটিম বাদী হয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। ওই যুবতীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কোতোয়ালি থানাপুলিশ ওই চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
অভিযুক্ত চিকিৎসক আর. কে.এস রয়েল সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক চিকিৎসা বিভাগের প্রধান। নগরীর মেডিকেল রোডস্থ কাজলশাহ ল্যাবএইড লি. ডায়গনস্টিক সেন্টারে তাঁর প্রাইভেট চেম্বার।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ জানান, অভিযোগকারী যুবতী ২০১৮ সাল থেকে সিলেটের এই সাইকিয়াট্রিস্ট বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিচ্ছেন। একপর্যায়ে ওই যুবতীর প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েন তিনি এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় ভিকটিককে ধর্ষণ করেন।

এদিকে, রবিবার সন্ধ্যায় ওই যুবতী ডাক্তার আর.কে.এস রয়েলের ল্যাবএইডস্থ চেম্বারে এসে হুলস্থূল কাণ্ড শুরু করেন। এসময় তিনি চিৎকার করে ডাক্তার আর.কে.এস রয়েলকে বলেন- আমাকে এই মুহুর্তে আপনার বিয়ে করতে হবে। আমার গর্ভে আপনার সন্তান।
যুবতীর চিৎকার চেঁচামেচি শুনে উৎসুক জনতা ভিড় করেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে এবং ভিকটিম ও ডাক্তারকে থানায় নিয়ে আসে।
এ ঘটনায় পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।