কুয়াকাটায় বেড়াতে এসে বন্ধুসহ সাদ্দাম মাল গ্রেফতার

২২ নভেম্বর ২০২২, ২:৪৩:৩০

নিজেস্ব প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় মারামারি ও ছিনতাই মামলায় সাদ্দাম মালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় সুমন সিকদার নামে তার এক বন্ধুকেও গ্রেফতার করা হয়। সোমবার ভোর ৫টার দিকে কুয়াকাটা হোটেল বনানী প্যালেস থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। সাদ্দাম মাল ইউটিউব চ্যানেল কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়ার কন্টেন্ট ক্রিয়েটর।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রোববার সন্ধ্যায় বরগুনা থেকে কুয়াকাটায় বেড়াতে আসেন সাদিক ও তার পরিবার। পরে ফ্রাই পট্টিতে গেলে সাদ্দাম মালসহ কয়েকজন তাদের অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করেন। প্রতিবাদ জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে সাদিকসহ তার পরিবারকে মারধর করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি সোনার চেইন, একটি স্মার্টফোন এবং নগদ টাকা ছিনিয়ে নেন সাদ্দামসহ তার লোকজন।

কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়া ইউটিউব চ্যানেলের পরিচালক শুভ কবির বলেন, ‘রোববার রাতে সাদ্দাম মালকে দেখে সেলফি তোলার জন্য বরগুনা থেকে আসা ছয়-সাতজন যুবক এগিয়ে আসেন। একই সময় তালতলী থেকে আসা আরও দুজন ভক্ত সেলফি তুলতে চান। এ সময় সেলফি তুলতে আসা দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। সাদ্দাম তাদের থামানোর চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে বরগুনা থেকে আসা সাদিকুর রহমান ও তার সঙ্গে থাকা কয়েকজন সাদ্দামকে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন।

সাদ্দাম প্রতিবাদ জানালে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। শুভ আরও বলেন, ‘কুয়াকাটা মাল্টিমিডিয়ার জনপ্রিয়তাকে হেয়প্রতিপন্ন করতে পরিকল্পিত এ ঘটনা ঘটিয়েছে তারা। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই এবং তীব্র নিন্দা জানাই। মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, বরগুনা থেকে আসা এক ব্যক্তির করা মারামারি ও ছিনতাই মামলায় সাদ্দামসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছি। দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।