সোমবার ২৮ নভেম্বর, ২০২২

For Advertisement

বিজিবি সদস্য নেপালের বাড়িতে চলছে মা,বাবা ও স্ত্রীর আহাজারি

৫ বছরের অর্ণপ জানে না বাবা বেঁচে নেই

১৯ নভেম্বর, ২০২২ ১২:৪২:৫১

মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি ঃ ৫ বছরের অর্ণপ জানে না বাবা বেঁচে নেই। কারন তিন দিন আগে সে বাবার কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের চকলেট, চকলি সহ নানারকম খাবার জিনিস পেয়েছে। বাড়ি থেকে যাবার আগে ভীষণ আদর করে বলেছিল থাকো, আমি আবার আসার সময় তোমার অনেক কিছু খাবার জিনিস নিয়ে আসবো। সে ভাবে আসা আর হলো না নেপালের। আসছে ঠিকই কিন্তু লাশ হয়ে অ্যম্বুলেন্সে করে। কে জানতো বাড়ি থেকে যাবার তিনদিন পরে লাশ হয়ে আসবে। জয়পুরহাট বিজিবি ক্যাম্পে মারা যাওয়া নেপালের বাড়ি ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের কলাগাছি গ্রামে।
শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে তাঁর বাড়িতে গিয়ে শুধু শোকের মাতম চোখে পড়ে। আর ৫ বছরের অর্ণপ নিরবে রান্না একটি ঘরের বারান্দার সিড়িঁতে বসে আছে অন্য বাচ্চাদের সাথে। পারিবারিকসূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ভোরে জয়পুরহাটের বিজিবি ক্যাম্পের প্রধান গেটে ডিউটিরত অবস্থায় নেপাল মারা গেছে।
নেপালের চাচাত ভাই ও মেগচামী আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক তাপস দাস জানান, নেপাল গত মঙ্গলবার বাড়ি থেকে চাকুরির স্টেশনে চলে যায়। সকালে আমরা জানতে পারি সে মারা গেছে।
নিহত বিজিবি সদস্য নেপাল
নেপালের বড় ভাইয়ের স্ত্রী জানান, আমার স্বামীসহ আমার ঢাকায় থাকি। ভোরে মেগচামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাড়িতে জানায় নেপাল মারা গেছে। বাড়ি থেকে মেবাইলে আমাদের জানায় নেপাল মারা গেছে। এরপর আমার স্বামী ঢাকা থেকে জয়পুরহাটের উদ্দেশ্যে রওনা হয় এবং আমি মধুখালীর উদ্দেশ্যে রওনা হয়। নেপালের লাশ অ্যা¤বুলেন্সে করে বাড়িতে নিয়ে আসছে।

নেপাল মধুখালী উপজেলার বামুন্দি বালিয়াকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০০৯ সালে এস.এস.সি পরীক্ষা দিয়ে পাস করে বলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিশ^জিৎ কুমার জানান। তিনি আরও জানান, নেপাল ভালো ছাত্র ছিল এবং শান্ত,ভদ্র ছিল।
নেপালের চাচাত ভাই দেবাশিষ দাস জানান, নেপাল ২০১২ সালের ২২ এপ্রিল চাকুরিতে যোগদান করে। ৭ বছর আগে পাংশা উপজেলার বাগদুল গ্রামে বিবাহ করে এবং ৫ বছরের একটি পুত্র সন্তার অর্ণপ রয়েছে। নেপালসহ তিন ভাইয়ের মধ্যে সে মেঝো ছিল। এলকারা কারো সাথে সে খারাপ ব্যবহার করেনি।
নেপালের বাবা, মা,স্ত্রীর সাথে বিকাল সাড়ে ৫টা নাগাদ কথা বলার চেষ্টা করলেও তাঁদের আহাজারির কারনে কথা বলা সম্ভব হয়নি। নেপালের আত্মীয় অনিমেষ দাস জানান, নেপালের ভাই লাশ নিয়ে বিকাল ৫ দিকে নাটোর পার হয়েছে। বাড়িতে পৌঁছাতে রাত ৮ টা পর্যন্ত সময় লাগে।

মেগচামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সাবির উদ্দিন সেক জানান, সকালে জয়পুরহাটে বিজিবি ক্যাম্পের অধিনায়ক পরিচয়ে আমাকে ফোন দিয়ে জানায় আপনার ইউনিয়নের কলাগাছি গ্রামের নেপাল মারা গেছে। সে সংবাদটি আমি নেপালের বাড়িতে পৌছায়।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাঠকের মন্তব্য:

For Advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোঃ রাসেল ইসলাম
বার্তা সম্পাদক : রাইতুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয় : ১৬১/১/এ উলন, রামপুরা, ঢাকা-১২১৯
মোবাইল : 01715674001
বিজ্ঞাপন : 01727338602
ইমেইল : [email protected], [email protected]

Developed by RL IT BD