প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

For Advertisement

শারদীয় দূর্গাপুজা উপলক্ষ্যে মধুখালীতে প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২:১৩:৫৭

মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি ঃ ফরিদপুরের মধুখালীতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা নির্মাণে মৃৎশিল্পীরা।
কয়েকদিন পরই মর্ত্যে আসছেন দেবী দূর্গা। দিনরাত পরিশ্রম করে নিপুন হাতে তৈরি করছেন দেবী দূর্গাকে। ২৫সেপ্টেম্বর মহালয়া এবং ৩০ সেপ্টেম্বর পঞ্চমী তিথিতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গাপূজার মুল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে।

শিশির ভেজা দূর্বা ঘাসের উপর ঝড়ে পরা বকুল ফুল কুড়ানোর সময়টাতে মাতৃবন্দনায় মিলিত হবেন মাতৃভক্তবৃন্দ। ইতিমধ্যে মৃৎশিল্পীদের দক্ষ হাতের ছোঁয়ায় পূর্নরুপে ফুটে উঠেছে দৃষ্টিনন্দন অধিকাংশ প্রতিমা। মধুখালীতে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ।সারাদেশের মতো উপজেলা অনেক প্রতিমাশিল্পীকে নির্ঘুম রাত কাটাতে দেখা যাচ্ছে।সনাতন ধর্মাবলম্বী মাতৃভক্ত কুল পুজাচ্ছ¡ ঐ দিনগুলোর অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন। ঢাকঢোল বাঁশি কাঁসর বাজনায় তালে তালে আরতি হবে হবে গীতাপাঠ এবং ধর্মীও সংগীতানুষ্ঠান।এবছর দেবী দূর্গার আগমন গজে এবং ফিরবেন নৌকায়।মধুখালী উপজেলা পুজা উৎযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ রায় জানান এ বছর ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ১৫৮টি দূর্গা মন্দীরে শারদীয় দূর্গা পুজা অনুষ্ঠিত হবে। গেল বছর উপজেলায় ১৫৪টি মন্দীরে শারদীয়া দুর্গা পুজা অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

মধুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আশিকুর রহমান চৌধুরী এ প্রতিনিধিকে জানান শারদীয় দূর্গা পুজায় সরকারী নির্দেশনা যেটা আসবে সেটা মেনেই শারদীয় দূর্গাপূজা পালনের নির্দেশনা দেয়া হবে। নিরাপত্তায় প্রতিটি মন্দীরে আনসার ও গ্রাম পুলিশ নিয়োগ দেওয়া হবে। অপ্রিতিকর ঘটনা এড়াতে মাঠে পুলিশ থাকবে।

For Advertisement

দৈনিক আলোর প্রতিদিন’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: